মেয়ে করল বিয়ে, বাবা করল গুলি নিজ মাথায়

এই সেই লোম হর্ষক ছবি। ভিডিও ফুটেজ থেকে নেয়া।
কালপ্রবাহ ,ঢাকা: মেয়ে বিয়ে করেছে নিজ মতে। পছন্দের ছেলেকে। আর সেটা সহ্য করতে না পেরে বাবা নিজ মাথায় গুলি করে আত্মহত্যা করল। শুধু আত্মহত্যা করেই ক্ষান্ত হননি ক্ষ্যাপা বাবা। সেটার লাইভ ভিডিও প্রচার করেছেনে সোশ্যাল নেটওয়ার্ক জায়ান্ট ফেসবুকেও।

ঘটনাটি ঘটেছে তুরুস্কের একটি শহরে। কায়সেরি শহরের একটি বাসায় মেয়েটির ৫৪ বছর বয়সি এই বাবা ফেসবুকে লাইভ থাকা অবস্থায় নিজ মাথায় ট্রিগার টেনে গুলি করেন। ফিল্মি স্টাইলে এক….দুই…তিন গুনে ট্রিগার টানেন। ট্রিগার টানার আগে মেয়ের উদ্দেশে বলে যান শেষ কথা ‍”গুড বাই, আমি চলে যাচ্ছি. তুমি নিজের খেয়াল রেখ‍”।
ফেসবুকে সম্প্রচারিত লাইভ ভিডিওতে দেখা যায় মেয়েটির বাবা গুলি লাগার সঙ্গে সঙ্গে মাটিতে হুমড়ি খেয়ে পড়েন। যদিও ভিডিওটির সঠিকতা যাচাই এখনো কেউ করতে পারে নি।
নিজ মাথায় গুলি করে আত্মহত্যার আগে তিনি এর কারণ উল্লেখ করেন। মেয়ে তার অনুমতি না নিয়ে বিয়ে করেছে, এটাই মূল কারণ।
ভিডিও’র শুরুতে তিনি বলেন, আমি এই ভিডিও লাইভ প্রচার করছি, মৃত্যুর আগে আমি উইল করে যাচ্ছি, আজ আমাকে যে এই অবস্থানে নিয়ে এসেছে যে যেন আমার দাফন কাজে অংশগ্রহণ না করে।
তিনি আরো বলেন, আমি একটি ফোন কলের মাধ্যমে আমার মেয়ের বিয়ের কথা জানতে পারি। সে আমাকে ফোন করে বলল, “এস বাবা একটি ট্রিট দেই”।
“আমার শ্বশুড় কোনো অধিকার না থাকা স্বত্ত্বেও আমার অবস্থান নিয়ে আমার মেয়ের বিয়ের অনুমতি দিয়ে দেয়। আমার সঙ্গে কোনো মানুষিক আচরণ করা হয়নি। আমাকে মানুষ হিসেবে গণ্য করা হয়নি।”
সূত্র: ডেইলি মেইল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *